সকাল ১০:১৪ | ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ১১ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

শাকিবের প্রতি ক্ষেপেছেন চিত্রনায়িকা নিপুন

বিনোদন ডেস্ক: বুবলির প্রশংসা করতে গিয়ে চলচ্চিত্র শিল্পের মানুষকে হেয় করায় চিত্রনায়ক শাকিবের প্রতি ক্ষেপেছেন চিত্রনায়িকা নিপুন। তিনি শাকিবকে বাংলা চলচ্চিত্রশিল্পের জন্য ক্ষতিকর বলে মন্তব্য করেন। নিপুণের ভাষ্য, শাকিব খান নিজেই অশিক্ষিত। বিদেশে গেলে ইমগ্রেশনে ফর্ম পূরণ করতে পারত না। না বুঝে ইয়েস-নো করতেন।

শাকিবকে তার পেছন ফিরে তাকানোর পরামর্শ দিয়ে নিপুন বলেন, তাহলে তার (শাকিব) শিক্ষাগত যোগ্যতা, আর ফ্যমিলি ব্যাকগ্রাউন্ড মনে পড়বে তার।

শাকিব খান দেশি-বিদেশি স্বার্থান্বেষী মহলের জন্য বাংলা সিনেমা নিয়ে নোংরা রাজনীতি করছেন অভিযোগ করে নিপুণ বলেন, আর তা বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর হবে। শাকিবের কারণেই অনেকে সিনেমায় টাকা লগ্নি করতে ভয় পায় দাবি করে নিপুণ বলেন, শাকিবের মতো শয়তান যত দিন ইন্ড্রাস্ট্রিতে থাকবে ভালো মানুষরা সেখানে বিনিয়োগ করতে চাইবে না।

নিপুণের এই রোষের কারণ নিউজ টোয়েন্টিফোর চ্যানেলে এক ঘণ্টার একটি সাক্ষাৎকারে দেয়া শাকিবের বক্তব্য। গতকাল রবিবার এই টিভি চ্যানেলের সাক্ষাৎকারে উপস্থাপিকা শাকিবকে প্রশ্ন করেন, ‘আপনি বুবলির অনেক প্রশংসা করেন। তাকে নিয়েও আপনার সিনেমা নিয়ে অনেক গুঞ্জনের কথাও শোনা যায়। এসব বিষয়ে আপনি কেমন মনে করেন।’

জবাবে শাকিব খান এবারও বুবলিল প্রশংসা করে বলেন, ‘অপু ম্যাডামের কল্যাণেই হয়তো গুঞ্জনগুলো এসেছে। বুবলি টিভি চ্যানেলের একজন প্রাইম নিউজ প্রেজেন্টার ছিলেন। এখন সে সিনেমা করছে। তাই আমরা এখন বলতে পারি, দেখো, আমাদের নায়িকারাও এখন কত ওয়েল এডুকেটেড। কত ভালো জায়গা থেকে এসে তারা নায়িকা হচ্ছেন। এসব তো প্রসংশা করারই মতো।’

আর এসব শুনেই ক্ষেপলেন নায়িকা নিপুন। তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে শাকিবের বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করে ক্ষোভ প্রকাশ করেন শাকিবের প্রতি।

নিপুনের স্ট্যাটাসটি নিচে হুবহু তুলে ধরা হলো।

‘শাকিব খান আজকে আপনাকে কিছু কথা বলতে চাই ।

আপনি কিভাবে বলেন বা বুঝাতে চান যে, বাংলাদেশের নায়িকারা শিক্ষিত না? ব্যাকগ্রাউন্ড ভালো না ?
মিডিয়াতে শুধু বুবলি যোগ্য এবং শিক্ষিত? (বুবলি, আপনার সঙ্গে আমার কোনো পারসোনাল সমস্যা নাই।)

শাকিব খান, আপনি নিজের বৌ-এর চেয়ে বেশি বারবার বুবলির গুণগান মিডিয়াতে বলছেন। তাই নয় কি? যাই হোক, ব্যক্তিগত ব্যাপারে না-ই বা গেলাম…

আপনি পারসোন্যালি মানুষকে বা বুবলিকে খুশি করার জন্য যা খুশি বলেন, কিন্তু মিডিয়ার সামনে অন্য আর্টিস্টদের সম্মান দিয়ে কথা বলবেন।

আর আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা? আপনার ফ্যামেলি ব্যাকগ্রাউন্ড? আপনি মনে হয় আপনার ১১ বছর আগের কথা ভুলে গেছেন।

ইমিগ্রেশন অফিসার ইমিগ্রেশনে ইংরেজিতে যা কিছুই জিজ্ঞেস করত, আপনি না বুঝেই `ইয়েস’ `নো’ বলতেন। যেখানে অন্য আর্টিস্টরা ঠিকঠাক উত্তর দিত।

আপনি এতই শিক্ষিত যে ‘ইডি’ (এম্বারকেশন-ডিসএম্বারকেশন) কার্ড পূরণ করতে পারতেন না। ভুলে গেছেন? ইন্ড্রাস্ট্রিতে অনেক শিক্ষিত আর্টিস্ট আছে, যাঁরা নিজের ব্যাপারে মিথ্যা জাহির করে না।

আপনি মনে হয় আপনার ব্যাগগ্রাউন্ডের সঙ্গে সঙ্গে অন্য আর্টিস্টদের ব্যাকগ্রাউন্ডও ভুলে গেছেন। তাই আমি আমার ব্যাকগ্রাউন্ড আবারও আপনাকে মনে করে দিতে চাই যে, আমি কোথা থেকে এসেছিলাম এবং আমার ফ্যামেলি ব্যাকগ্রাউন্ড, আমার বাবার পেশা, আমার মার পেশা, আমার ভাই-বোন, আমার শিক্ষা, আমার গ্রাজুয়েশন কি?

আপনাকে আরও মনে করিয়ে দিতে চাই যে, বনানীর যে বাসায় আমি থাকি সেটা সিনেমার টাকায় কেনা না । এটা আমার পৈতৃক, মিডিয়াতে আসার আগে থেকেই ছিল। সিনেমায় এসেছি ভালো লাগা থেকে। মস্কো থেকে ২ বছর পর গ্রাজুয়েশন এর ক্রেডিট ট্রান্সফার করে ইউএসএর লা ভ্যালি কলেজ থেকে গ্রাজুয়েশন শেষ করে এসেছি।

আপনি তো আবার অতীত ভুলে যান। তাই আরও মনে করিয়ে দিতে চাই যে, আপনি সুটিংয়ের সেটে রাজ্জাক আঙ্কেলকে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত বসিয়ে রেখেছিলেন। শেষ পর্যন্ত সেটে আর আসেননি। আরও কতজনকে যে অসম্মান করেছেন তার হিসেব নেই। ভুলে গেছেন?

ইন্ড্রাস্ট্রিতে যা খুশি তা করেছেন আপনি। সিনিয়ররা আপনার ব্যবহারে অতিষ্ট। আপনার জন্যই তো ওনারা ইন্ড্রাস্ট্রিতে নিয়মিত না। আপনি কি করে ভাবেন যে, রাজ্জাক আঙ্কেল, ফারুক আঙ্কেল, আলমগীর আঙ্কেল আপনাকে বারবার সাপোর্ট দিবে। শাকিব খান, বাংলা সিনেমা নিয়ে আপনি যে নোংরা রাজনীতি করছেন তা নিজের ও কিছু দেশী-বিদেশী স্বার্থান্বেষী মহলের স্বার্থ রক্ষার জন্য করছেন, যা বাংলাদেশ চলচিত্র শিল্পের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। বাংলা চলচিত্র নিয়ে নোংরা রাজনীতি বাদ দেন। আর মিডিয়ার সবাই জানে আপনার অতীত এবং ব্যাকগ্রাউন্ড।

বুবলির ভিডিও গানের লক্ষ লক্ষ ভিউয়ের কথা এত বারবার বলেন কেন? ভিউ বেশি মানেই কি অপুর (অপু বিশ্বাস) চেয়ে বেশি বুবলির গ্রহণযোগ্যতা দর্শকদের কাছে? আপনি কি জানেন না যে বুস্ট করিয়ে মানে টাকা খরচ করিয়ে ভিউ বাড়ানো যায়?

আর আমি যখন থেকে ইন্টারনেট ব্যবহার করি, তখন আপনি ইন্টারনেটের ‘ই’ও জানতেন না। মুভি বানানোর জন্য ইনভেস্ট আমিও করতে পারি, কিন্তু আপনার মতো শয়তান যত দিন ইন্ড্রাস্ট্রিতে থাকবে ভালো মানুষরা ইনভেস্ট করতে চাইবে না। কারণ কিছু লোককে তো রেখেছেনই টাকা দিয়ে সেই সিনেমা পাইরেসি করানোর জন্য এবং নিজেকে স্বঘোষিত কিং খান প্রতিষ্ঠিত করার জন্য। পরবর্তীতে মিডিয়াতে কথা বলার আগে অবশ্যই চিন্তা ভাবনা করে সিনিয়র আর্টিস্টদের ও অন্যান্য আর্টিস্টদের সম্মান দিয়ে কথা বলবেন আর নিজের অতীতটা মনে রাখবেন।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *