রাত ১২:৩৯ | ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৫শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

রানা স্বাধীনচেতা দীর্ঘমেয়াদে প্রাসঙ্গিক

বিনোদন ডেস্ক : বাংলাদেশের সংগীতপ্রেমী মানুষেরা বিগত বেশ কয়ে বছর ধরেই চিরাচরিত প্রথার বাইরে তেমন কোন গান শুনতে পান নি। না এলবামে, না প্লেব্যাকে, তোথাও যেন ঐ একঘেয়েমি চাটছিলই না। অবশেষে গত মে মাসে জি সিরজের ব্যানারে প্রতিভাবান ও সম্ভাবনীয়ম শিল্পী রানা স্বাধীনচেতা নিয়ে আসেন তাঁর প্রথম মৌলিক একক ‘মানচিত্র’। ৫টি গান সিয়ে সাজানো এ এলবামে টাইটেল ট্রাকটি বর্ণিত সময়ে রিলিজ হয়েছে। বাকী গানগুলো একে একে মুক্তি পাবে। শিল্পীর নিজের তথা ও সুরে গানটিতে সংতায়োজন করেন জেড এইচ বাবু। যারা শুনেছেন তাদের মধ্যে অনেকেই জি-সিরিজের অফিসিয়াল ইউ টিউব চ্যানেলে তাদের ভালো লাগার তথা জানিয়েছেন এবং তরুণ প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পী রানা স্বাধীনচেতা যে নিজস্ব একটি ধারা প্রতিষ্ঠিত করেছেন তাও স্বীকার করে নিয়েছেন। আসলে প্লাস্টিক মিউজিকের এ যুগে রানা স্বাধীনচেতার স্বকীয়তা তাদের মধ্যে স্বস্তি এনে দিয়েছেন। এর দুমাস পর নতুন প্রযোজনা সংস্থা জ্যাক মাল্পিমিডিয়া নিয়ে আসে শিল্পীর ২য় একক এলবাম ‘কান্নার মেহফিল’ এর টাইটেল ট্র্যাক ‘বেঁচে আছি’। মানচিত্র এর মতো এ গানটিও শ্রোতামহলে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে এবং যারা শুনেছেন প্রত্যেকে তাঁর ভূয়াসী প্রশংসা করেছেন। বর্তমান সমাজব্যবস্থার অরাজকতা ও আত্মকেন্দ্রিকতা নিয়ে রচিত এ গানটির কথা যেমন সময়পোযোগী, সুরও তেমনি মনোমুগ্ধকর। ছেলেবেলা থেকেই ওপার বাংলার বিখ্যাত সংগীত ব্যক্তিত্ব নচিকেতা চক্রবর্তীর ভক্ত ও শিল্পী এ গানটি করতে করকাতায় পাড়ি জমান। শিল্পীর নিজের কথা ও সুরে গানটিতে রিদম ডিজাইনিং বাজানো মেধাবী অতলাশিল্পী প্রসেনজিৎ শীল এবং সংগীতায়োজন করেন দেবোশ্রী মুখার্জী। এ গানটি রিলিজ হওয়ার দু সপ্তাহ পর রিলিজ হয় কান্নার মেহফিল এলবামের আরেকটি গান ‘তোর চোখে তাকালেই’। রানা স্বাধীনচেতার অসাধারণ কথায়, সুরে ও কন্ঠে গানটির সংগীত পরিচালক আর জয়। জ্যাক মাল্পিমিডিয়ার ইউটিউব চ্যানেলে ‘Best Romantic Songs Ever In Bangladesh’ দিয়ে বিশেষায়িত করা হয়েছে গানটিকে। সত্যিই যেন তাই, বিরক্তিকর ‘তুমি-আমি, ভালবাস’ ছাড়াও যে অন্য আঙ্গিকে প্রেমকে উপস্থাপন করে রোমান্টিক গান তৈরী করা যায় তা যেন অন্যদের চোখে আঙুল দিয়ে বুজিয়ে দিলেন রানা স্বাধীনচেতা। সবচেয়ে সেরা কিনা সে প্রমাণে বহু তর্ক বিতর্ক হতে পারে তবে বাংলা ভাষায় এমন রোমান্টিক গান যে ইতোপূর্বে তৈরী হয় নি সেটা সকলেই মনে নিতে বাধ্য। সংগীতকেই ধ্যান জ্ঞান পেশা হিসেবে নেয়া এ শিল্পী যে কিছুদিন পর এদেশের মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে রাজত্ব করবেন তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না এবঙ এর ব্যপ্তিকালও হবে দীর্ঘসময়ের। কেননা বাংলা সংগীত জগতে তিনি যে বহুদিন টিকে থাকতেই এসেছেন এর প্রমাণ ইতোমধ্যেই তাঁর শ্রোতা-দর্শকেরা পেয়ে গিছেন।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *