রাত ১২:৩৯ | ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৫শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

মৌলিক গানে মুজিব পরদেশীর ফেরা

বিনোদন ডেস্ক :  টানা দুই যুগ পরে মৌলিক গানে কণ্ঠ দিলেন ফোক গানের কিংবদন্তি মুজিব পরদেশী। তোমাকে ভুলতে গিয়ে আমি সব ভুলেছি/ শুধু তোমার স্মৃতিগুলো ভুলতে পারিনি- এমন কথায় গানটির শিরোনাম ‘প্রেমের কাঁটা’। লিখেছেন নীহার আহমেদ, সুর করেছেন মুরাদ নূর আর তাতে সংগীতায়োজন করেছেন মুশফিক লিটু।

সম্প্রতি রাজধানীর লং প্লে স্টুডিওতে গানটির রেকর্ডিং হয়। মৌলিক গানে ফেরা প্রসঙ্গে মুজিব পরদেশী বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন নতুন মৌলিক গান তৈরি থেকে দূরেই ছিলাম। নাছোড়বান্দা মুরাদ নূর। না গেয়ে আর থাকা গেল না। তবে গানের কথা ও সুর আমার বেশ ভালো লাগাতেই গানটি গাইলাম। এমন মেধাবী তরুণদের সঙ্গে আমি থাকতে চাই।’
এদিকে সুরকার মুরাদ নূর বলেন, ‌‌‘গুণীজনদের সঙ্গে নিয়ে পথ চলতে আমি বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। দীর্ঘ সময়ের পরিকল্পনা ও লালিত স্বপ্ন ছিলো ফোক লিজেন্ড মুজিব পরদেশী ভাইকে নিয়ে গান বানানোর। স্বপ্নটি পূরণ হওয়াতে আমি আনন্দিত।’
সুরকার জানান, এই ঈদে ‌পরদেশীর ‘প্রেমের কাঁটা’ গানটি প্রকাশ পাচ্ছে।
প্রসঙ্গত, ১৯৮৬ সালের কথা। গীতিকার হাসান মতিউর রহমান একজন শিল্পী খুঁজছেন যিনি পংকজ উদাসের মতো হারমোনিয়াম বাজিয়ে গজল গাইতে পারে এমন কাউকে। তখন মুজিব পরদেশী তার বাবার ফলের দোকানে কাজ করেন আর অবসরে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে গান করেন। এভাবে একদিন হাসান মতিউর রহমানও মুজিব পরদেশীর গান শুনলেন রাস্তায়। সেই শোনার পর থেকে মুজিব পরদেশীর কণ্ঠটি তার কানে বাজতে থাকে। অনেক কষ্টে ঠিকানা সংগ্রহ করে হাসান মতিউর রহমান ওয়াইজ ঘাটে গেলেন মুজিবের বাবার ফলের দোকানে। মুজিবুরকে ক্যাসেট বের করার প্রস্তাব দিলেন। প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে মুজিবুর রহমান মোল্লা একটি অডিও ক্যাসেট বের করতে এলেন। হাসান মতিউর রহমান মুজিবুর রহমান মোল্লা নামটির বদলে রাখলেন মুজিব, সঙ্গে যোগ করলেন ‘পরদেশী’ শব্দটা। এভাবে হাসান মতিউর রহমানের হাতে জন্ম নিল একজন নতুন শিল্পী মুজিব পরদেশী। ১৯৮৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর মাত্র পৌনে ২ ঘণ্টায় ১১টি গান রেকর্ড করে ফেললেন মুজিব পরদেশী। যা পরবর্তীতে হয়ে যায় একটি ইতিহাস। পুরো অ্যালবাম তৈরি করতে খরচ হয়েছিল ১,৩৬০ টাকা। যা বিক্রি হয়েছিল ৬০ লাখ কপি (মূল কোম্পানির) আর নকল করে আরও প্রায় ২৫/৩০ লাখ কপি যা হয়ে গেলো অডিও ইন্ডাষ্ট্রির সর্বাধিক বিক্রিত ক্যাসেটের রেকর্ড।
বাংলাদেশের এমন কোনো শ্রোতা পাওয়া যায়নি তখন যার ঘরে এই অ্যালবামটি ছিল না। শহর, বন্দর, গ্রাম-গঞ্জের সবখানে মুজিব পরদেশীর ‘আমি বন্দি কারাগারে’ অ্যালবামটি বাজতে থাকলো। শুধু কি অডিও ক্যাসেটে? না, সেই অ্যালবামের ১১টি গান ১১টি চলচ্চিত্রে ব্যবহার হয়েছিল। তার মাঝে তোজাম্মেল হক বকুলের ‘বেদের মেয়ে জোছনা’ ছবিতে ‘আমি বন্দি কারাগারে’ গানটি এমনই হিট করলো যে ছবিটি হয়ে গেলো বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের সবচেয়ে ব্যবসাসফল রেকর্ড গড়া ছবি। এভাবেই মুজিব পরদেশী হয়ে গেলেন ফোক গানে বাংলাদেশের শ্রোতাদের খুব জনপ্রিয় একটি নাম।
তার গাওয়া সুপারহিট গানের মধ্যে রয়েছে, কলমে নাই কালি, আমি বন্দী কারাগারে, তোমায় আমি হলেম অচেনা, আমার সাদা দিলে কাদা লাগাই গেলি রে বন্ধুয়া, আমি যার লাগি হইলাম অনুরাগী গো প্রাণসজনী, আমার জনম গেলো কাঁদিতে, আমারে নি পড়ে তোমার মনে প্রভৃতি।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *