রাত ১২:২৫ | ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৩শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের টপ অর্ডার নিয়ে ত্রিভুজ প্রেম

স্পোর্টস ডেস্ক : বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের জনপ্রিয় ছবি ‘কুচ কুচ হোতা হ্যায়’ এর কথা মনে পড়ে গেল। কিং খানকে মনে প্রাণে ভালোবাসেন দুই অভিনেত্রী রানী মুখার্জি আর কাজল। কিন্তু খান সাহেব কাজলকে ভাবেন স্রেফ বন্ধু। একজনের জন্য দুই জনের প্রেমে পড়া ত্রিভুজ প্রেমের অন্যতম উদাহরণ। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের টপ অর্ডার নিয়ে বোধহয় ত্রিভুজ প্রেমই চলছে।

একপাশে তামিম ইকবাল অটোমেটিক চয়েস। অপরপাশে সৌম্যর ‘রাজত্ব’। ভালো করলেও সৌম্য সরকার, খারাপ করলেও সৌম্য সরকার। এমন প্রশ্ন নতুন নয়। মাঝে মধ্যে দলের প্রয়োজন হলে ইমরুল কায়েসকে নামিয়ে চলে পরীক্ষা-নিরীক্ষা। প্রায় দুই বছর ধরে সৌম্য-ইমরুলকে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে তামিমের সঙ্গী করা হয়েছে।

তাতে লাভের চেয়ে সমালোচনাটা বেশিই হয়েছে। গত বছরের বেশ কয়েকটা দ্বিপাক্ষিক সিরিজ এবং সর্বশেষ চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে টপ অর্ডারের একপ্রান্তের মলিন দশা ভাবিয়ে তুলেছে ক্রিকেটবোদ্ধাদের। জানা গেল, কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের পছন্দ সৌম্যকেই। কেবল কোচই নয়, নির্বাচক প্যানেলের কেউ কেউও সৌম্যর হয়ে ব্যাট করছেন।

সৌম্য সরকার দীর্ঘদিন থেকেই ফর্মে নেই। এই সুযোগে জাতীয় দলে ফেরার আগ্রহ থাকতেই পারে এনামুল হক বিজয় এবং মেহেদী মারুফের। পজিশন কিন্তু একটা। কে হবেন তামিমের সঙ্গী? এই একটা পজিশন পেতে রীতিমত লড়াই করছেন কয়েকজন। সেক্ষেত্রে বিজয়-মারুফের দৌড়ঝাঁপ উল্লেখ করার মত। অস্ট্রেলিয়া ও সাউথ আফ্রিকা সিরিজের আগে চলবে টাইগারদের অনুশীলন ক্যাম্প। ১০ জুলাই থেকে মিরপুরে শুরু হবে ক্যাম্প।

ভিন্ন কন্ডিশনে নিজেদের শক্ত করে গড়ে তোলার জন্য বিসিবির হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) স্কোয়াড এখন অস্ট্রেলিয়ায়। সেখানে পাঁচ ওয়ানডে ও একটি তিনদিনের ম্যাচ খেলার পাশাপাশি মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডের ২ নম্বর মাঠে এবং ২ নম্বর নেটে অনুশীলন করবেন এইচপি দল। অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফেরার পর ইংল্যান্ড সফরে যাবে হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) স্কোয়াড। ক্যাম্পে আছেন মারুফ-বিজয়। এই সফরে নিজেদের প্রমাণ করে জাতীয় দলের জায়গাটা পাক্কা করতে চান দুজন।

‘অনেকদিন পর ট্যুরে যাচ্ছি। আমি আত্মবিশ্বাসী। সবার আশাটা পূরণ করাটা মূল লক্ষ্য হবে। বাবা-মা, ফ্রেন্ড সার্কেল সবাই খুব খুশি। তারা চাচ্ছে ভালো কিছু করি। আশা করি সুসংবাদ নিয়েই ফিরবো।’ মন্তব্য এনামুল হক বিজয়ের।

জাতীয় দলে ঢুকতে মুখিয়ে থাকা মেহেদী মারুফ বলেন, ‘গত কয়েক বছর ধরে বেশ কয়েকটা টুর্নামেন্ট খেলেছি। অনেক কিছু শিখেছি। সামনে হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের (এইচপি) ক্যাম্প। সেখানে নিজেকে প্রমাণ করতে চাই। আমি জাতীয় দলে ঢুকতে সব ধরণের পরিশ্রম করতে প্রস্তুত আছি।’

স্বপ্ন দেখতে মানা নেই। কিন্তু সে স্বপ্ন কী হবে পূর্ণ বিজয়-মারুফদের। যে জায়গার জন্য লড়াই করছে মারুফরা। পাবে সে জায়গা। নাকি অপেক্ষা করতে হবে আরও।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *