সন্ধ্যা ৭:৩৯ | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

দেশের উন্নয়নের জন্য সরকারে ধারাবাহিকতা দরকার:প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার : উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে জনগণকে আবারও আওয়ামী লীগের উপরে আস্থা রাখতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের জন্য সরকারে ধারাবাহিকতা দরকার। যারা নিজেদের জন্য ক্ষমতায় থাকতে চায় তাদের উপর জনগণের আস্থা নেই। বিএনপি লুটেরা পার্টি।

কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে সকালে গণভবনে দলের নেতাকর্মীরা দেখা করতে গেলে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৭ সালে গ্রেপ্তার করা হয় শেখ হাসিনা। ১১ মাস কারাভোগের পর ২০০৮ সালের ১১ জুন সংসদ ভবন এলাকায় স্থাপিত বিশেষ কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি।

এই দিবসটিতে সকালে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা গণভবনে শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। তারা দলীয় প্রধানের হাতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। শেখ হাসিনা বলেন, তাকে গ্রেপ্তারের আদেশ ছিল অবৈধ। কোনো ওয়ারেন্ট ছাড়া তাকে সে সময় আটক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। কিন্তু জনগণের চাপের মুখে সরকার তাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘দেশের স্বার্থ বিক্রি করতে চাইনি বলেই ২০০১ সালে ক্ষমতায় যেতে পারিনি। মুচলেকা দিয়ে রাজনীতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মেয়ে করে না। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে মামলা দিয়ে আমাদের দেশে ফিরতে রাধা দেওয়া হয়েছিল। আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতারা উদ্যোগ নিয়েছে বলে দেশে ফিরতে পেরেছি।’

আওয়ামী লীগ সভানেতা বলেন, তৃণমূলের নেতা কর্মীরা কখনও সিদ্ধান্ত দিতে ভুল করে না। আমি যখন দেশে ফিরতে চেয়েছিলাম ব্রিটিশ এয়ারলাইন্স আমদের টিকিট দিতে চাইছিল না। আর বাংলাদেশের এয়ারলাইন্সগুলোকে বলা হয়েছিল আমি যদি তাদের বিমানে আসি তাহলে তাদের লাইসেন্স বাতিল করে দেবে। এ কারণে দেশের কোন এয়ারলাইন্স আমাকে টিকিট দেয়নি। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজে আমেরিকা থেকে লন্ডন এসেছিলাম। প্রথমে তারাও টিকিট দিতে চায়নি। তখন আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা বিমানবন্দরে ছিল। তাদের সঙ্গে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। পরে আমি তাদের বলেছিলাম, আমি বাংলাদেশে নয় লন্ডন যাব। এর পর লন্ডন এসেছি।’

নিজের বন্দী জীবনকে অমানবিক বলে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাকে যে রুমে রাখা হয়েছিল তা অনেক পুরনো, ময়লা এবং বসবাসের অনুপোযোগী। তার পরও আমি মনোবল হারাইনি। জেল থেকে আদালতে আসার সময় আমি নেতা কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেছি তাদের দিক নির্দেশনা দিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয়, তা আজ প্রমাণিত।  উন্নয়নের এই ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য সরকারের ধারাবাহিকতা রক্ষা প্রয়োজন।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ বাংলাদেশকে ২০২১ সালের সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিণত করবে।খন্দকার মোশতাক ও জিয়াউর রহমানের চক্রান্তে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয় উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘যারা নিজেদের উন্নয়নের জন্য রাজনীতি করে তাদের ওপর জনগণের আস্থা নেই।’

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *