সকাল ১১:৪০ | ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২২শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

দিনাজপুর-৪ আসনে এবারও আ.লীগের মনোনয়ন চাইবেন মাহমুদ আলী

স্টাফ রিপোর্টার :  চিরিরবন্দর ও খানসামা নিয়ে গঠিত দিনাজপুর-৪ আসনে এবারও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইবেন বর্তমান সাংসদ ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী। আর বিএনপির নিজের জোরালো কোনো প্রার্থী নেই। তাদের আগের দুই নির্বাচনের বিদ্রোহী প্রার্থীরা এবার দলের মনোনয়নের জন্য  মাঠপর্যায়ে নেতাকর্মীদের সমর্থন পেতে কাজ করছেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে এই আসনের দুই দলেরই সম্ভাব্য মনোনয়নপ্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়েছে। তৃণমূল নেতাদের সমর্থন পেতে প্রার্থীরা চালাচ্ছেন নানা তৎপরতা। অনেকে কেন্দ্রের সবুজ সংকেতের জন্য সিনিয়র নেতাদের দ্বারস্থ হচ্ছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা এলাকায় নিয়মিত তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে কুশল বিনিময়, পোস্টার ও লিফলেট দিয়ে জনসাধারণের মাঝে শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন।

এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী আবার মনোনয়ন পাওয়ার আশা করছেন। তার পক্ষে নেতাকর্মীরা নিয়মিত দলীয় কর্মসূচি ছাড়াও তৃণমূলের সঙ্গে সর্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন।

ক্ষমতাসীন দলে সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকার আলোচনায় আরো আছেন সাবেক হুইপ ও কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান মানু। তিনিও নিয়মিত দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলছেন।

এদিকে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী হিসেবে ২০০১ সালের নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ও সংস্কারপন্থী নেতা আখতারুজ্জামান মিয়া। তিনি ২০০৮ সালের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রাথী হিসেবে নির্বাচন করে দল থেকে বিছিন্ন হয়ে পড়েন। তবে তিনি এবার মনোনয়ন পাওয়ার আশায় মাঠে-ময়দানে নেতাকমীদের সঙ্গে মতবিনিময় করছেন।

অন্যদিকে ২০০৮ সালে একসময়ের ধানের শীষ মার্কা ও পরে দেওয়াল ঘড়ি মার্কার স্বতন্ত্র প্রার্থী শিল্পপতি মো. হাফিজুর রহমান হাফিজ এবার প্রার্থী হতে পারেন বলে নির্বাচনী আলোচনায় রয়েছেন। বিপরীতে ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা মো. আশরাফ আলী খান নিজ দলে চূড়ান্তভাবে মনোনীত হন। তিনি জাগপার একক সম্ভাব্য প্রার্থী এবং আগামী সংসদ নির্বাচনের নতুন মুখ হিসেবে জনসর্মথন তৈরি করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষাসহ মাঠে-ঘাটে গণসংযোগ করে চলেছেন।

এ ছাড়া চিরিরবন্দর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট মো. আব্দুল হালিম এবং বর্তমান চিরিরবন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান ও সাবেক জামায়াত নেতা মো. আফতাব উদ্দিন মোল্লা নির্বাচনে নামছেন বলে শোনা যাচ্ছে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *