রাত ১০:৫৪ | ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২৩শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

গোয়েন্দা জালে অজ্ঞান পার্টির ১৫ সদস্য

স্টাফ রিপোর্টার :  রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অজ্ঞান পার্টির ১৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। শনিবার (১০ জুন) বিকাল ও রাতের বিভিন্ন সময়ে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের জনসংযোগ শাখার উপ কমিশনার মাসুদুর রহমান।
রাজধানীর জুরাইন, মগবাজার মোড়, ফকিরাপুল ও মৌচাক এলাকায় অভিযান চালিয়ে অজ্ঞান পার্টির ওই ১৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মাসুদুর রহমান বলেন, ‘গোপন সংবাদ পেয়ে রাজধানীর ওই এলাকাগুলোতে বিশেষ অভিযান চালায় ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা (পশ্চিম) বিভাগ ও সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ।’
গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে জুরাইন থেকে মো. মিজানুর রহমান, মো. আলমগীর হোসেন, মো. ইদ্রিস ব্যাপারী, মো. খোকন মোল্লা, মো. আবুল কালাম মিয়া, মো. বাবলু পাটোয়ারী ও মো. শাহ্ আলম শেখ; মগবাজার থেকে মো. আব্দুল মান্নান, মো. রিপন, মো. শরিফ ও মো. হুমায়ূন কবির; ফকিরাপুল থেকে আব্দুর রহমান, ইউনুস মিয়া ও মো. শ্যামল এবং মৌচাক থেকে মামুনুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা জানিয়েছে, ডাবের পানি, খেজুর, চা, কফি ও তরলজাতীয় খাদ্যের সঙ্গে চেতনানাশক ট্যাবলেট মিশিয়ে নিজেদের কাছে রাখে তারা। পরে তারা বিভিন্ন গণপরিবহনে হকার বা যাত্রী হিসেবে উঠে বসে। তাছাড়া বাসস্ট্যান্ড, রেলস্টেশন, লঞ্চ টার্মিনালের মতো জনাকীর্ণ স্থানগুলোতে ভিড় জমায় তারা।
অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা এসব স্থানে তারা নিরীহ যাত্রী বা পথচারীদের মধ্যে কাউকে কাউকে টার্গেট করে তার সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলে। এক পর্যায়ে তাদের সঙ্গে থাকা চেতনানাশক ট্যাবলেট মিশ্রিত খাবার খাইয়ে ওই ব্যক্তিকে অজ্ঞান করে ফেলে। পরে ওই ব্যক্তির কাছে থাকা টাকা-পয়সা ও অন্যান্য দ্রব্য লুটে নিয়ে যায়।
বছরজুড়ে এমন প্রতারণার মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করলেও ঈদ, পূজা, রোজাসহ অন্যান্য উৎসবের সময় তাদের তৎপরতা বৃদ্ধি পায় বলে জানিয়েছে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা।
মাসুদুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে চেতনানাশক তরল পদার্থ মিশ্রিত খেজুর ও বিপুল পরিমাণ চেতনানাশক ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *