সন্ধ্যা ৭:৪৯ | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

গৃহকর্মীকে নির্যাতন: জামিন পেলেন সেই বাংলাদেশি কূটনীতিক

স্টাফ রিপোর্টার :  গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশি বাংলাদেশ কনস্যুলেটের ডেপুটি কনসাল জেনারেল মোহাম্মেদ শাহেদুল ইসলাম জামিন পেয়েছেন। বাংলাদেশি সময় বুধবার (১৪ জুন) সকাল ৭টায় তিনি জামিন পান। নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশের নিযুক্ত কনসাল জেনারেল মো. শামীম আহসান এ তথ্য জানিয়েছেন।
নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশের ডেপুটি কনসাল জেনারেল মোহাম্মাদ শাহেদুল ইসলামকে তার গৃহকর্মীর এক মামলায় সোমবার (১২ জুন) গ্রেফতার করা হয়। আদালতের নথি অনুযায়ী, বাংলাদেশি দূতাবাস কর্মকর্তা শাহেদুল ইসলাম ২০১২-২০১৬ সালের মে মাস পর্যন্ত কোনও বেতন ছাড়াই মোহাম্মদ আমিন নামের এক ব্যক্তিকে তার বাড়িতে কাজ করতে বাধ্য করেন। গত বছর মে মাসে আমিন পালিয়ে যান এবং পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন।
আমির অভিযোগ অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে আসার পর পরই শাহেদুল ইসলাম তার পাসপোর্ট কেড়ে নেন এবং তাকে দিয়ে দৈনিক ১৮ ঘণ্টা কাজ করতে বাধ্য করতো। তার পরিবার ও বাইেরর কারও সঙ্গে তাকে যোগাযোগ করতে দেওয়া হতো না।
কুইন্স কাউন্টির অ্যাটর্নির অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ৪৫ বছর বয়সী শাহেদুল ইসলাম ডেপুটি কনসাল জেনারেল অব বাংলাদেশ হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি কুইনসের নিকটবর্তী জ্যামাইকা এলাকায় বসবাস করেন।

এর আগে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই গৃহকর্মী ২০১৬ সালের ১৭ মে থেকে শাহেদুল ইসলামের বাসা থেকে নিখোঁজ ছিল এবং তার নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি পরের দিন নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেট অফিস স্টেট ডিপার্টমেন্টের সদর দফতরে আনুষ্ঠানিক পত্রের মাধ্যমে জানানো হয়। ১৯ মে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসও স্টেট ডিপার্টমেন্টের সদর দফতরে বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে অবহিত করে। কিন্তু শাহেদুল ইসলামের গ্রেফতারের আগ পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনও তথ্য স্টেট ডিপার্টমেন্ট বাংলাদেশকে জানায়নি।

শাহেদুল ইসলাম রাজনৈতিক বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্রে নিয়োগপ্রাপ্ত কূটনীতিক। ২০১১ সালে নিউ ইয়র্ক মিশনে কাউন্সিলর পদে যোগ দেন তিনি।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *