রাত ৪:৩৫ | ৩রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

গাজীপুরে অন্তসত্তা গৃহবধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা : স্বামী-শ্বাশুরি আটক

মোঃ ফুয়াদ মন্ডল, গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি : গাজীপুর মহানগরের বাঘিয়া এলাকায় ৩ মাসের অন্তসত্তা এক গৃহবধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ নিহতের স্বামী মো. রতন মিয়া ও শ্বাশুরি রোকেয়া বেগমকে আটক করেছে। শুক্রবার রাত ৮টার দিকে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত নিগার সুলতানা (২২) জয়েরটেক এলাকায় সিরাজ মিয়ার মেয়ে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ বছর আগে নিগার সুলতানার সঙ্গে বাঘিয়া এলাকার সাইদুর মিয়ার ছেলে মো. রতন মিয়ার সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকে স্বামী স্ত্রী মধ্যে প্রায় ঝগড়া বিবাদ হতো। এক পর্যায়ে শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাতে নিগারকে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন গুরুতর অবস্থায় কোনাবাড়ী এলাকায় একটি ক্লিনিকে নিয়ে যায়। এসময় চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা সিরাজ মিয়া জানান, রতন মিয়া প্রায় আমার মেয়ে নিগার সুলতানাকে মারধোর করতো এবং আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে দিতে বলতো। কিছু দিন আগেও রতনকে ৩০ হাজার টাকা দিয়েছি। ৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার রাতে আমার মেয়ে নিগার সুলতানাকে রতন ও তার মা রোকেয়া বেগমসহ রতনের বাড়ির আরো কয়েকজন মিলে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। আমার মেয়ে নিগার সুলতানা ৩মাসের অন্তসত্তা ছিলো।

গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও টঙ্গী সার্কেল) মো. সাখাওয়াত হোসেন জানান, এঘটনায় নিহতের স্বামী মো. রতন মিয়া ও তার শ্বাশুরিকে পুলিশ আটক করেছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যার কোন আলামত পাওয়া যায়নি। তবে ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত ঘটনা বলা যাবে এটা হত্যা নাকি অন্য কোন ঘটনা।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *