রাত ৪:৩৫ | ৩রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

খাদের কিনারা থেকে দলের লাগাম টানার চেষ্টা করছেন মুশফিক-সাব্বির

স্পোর্টস ডেস্ক : ৪৩ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারায় টিম বাংলাদেশ। সেখান থেকে দলের লাগাম টানার চেষ্টা করছেন টাইগার দলনেতা মুশফিকুর রহিম এবং সাব্বির রহমান। দুজন মিলে ইতোমধ্যে স্কোরবোর্ডে ৪০ রান জমা করেছেন। সেই সুবাদে মধ্যাহ্ন ভোজনে যাওয়ার আগে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়াল ৫ উইকেটে ৮৩ রান।

সাগরিকায় আসা-যাওয়ার মিছিলে সর্বশেষ নাম লেখান ইমরুল (১৫), সাকিব (২), নাসির (৫)। তার আগে ঢাকা টেস্টে ৭১ আর ৭৮ রানের দারুণ দুটি ইনিংস খেলা তামিম ইকবালও আজ নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। প্রথম ইনিংসে ৯ রানের পর আজ দ্বিতীয় ইনিংসে ১২ রান করে আউট হয়েছেন তামিম। নাথান লায়নের বলে ডাউন দ্য উইকেটে মারতে গিয়ে ম্যাথু ওয়েডের স্টাম্পিংয়ে সাজঘরে ফিরতে হলো ‘লোকাল বয়’ তামিমকে।

ব্যর্থতার পরিচয় দেন সৌম্য সরকারও। দুই টেস্টের মাত্র এক ইনিংসে ২০ প্লাস রান করেছেন সৌম্য। ঢাকা টেস্টে ৮, ১৫ আর চট্টগ্রাম টেস্টে ৩৩ এবং ৯ রান। মনে হচ্ছে ব্যর্থতার ষোলকলাই পূর্ণ করলেন সৌম্যে। কেবল ব্যাটিংয়ে নয়, ফিল্ডিংয়েও ব্যর্থতার ছাপ রেখেছেন তিনি। ঢাকা টেস্টে দুইটি সহজ ক্যাচের পর চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিনে আরও একটি লোপ্পা ক্যাচ ছাড়েন সৌম্য সরকার।

এদিকে আগের দিনের সংগ্রহ ৯ উইকেটে ৩৭৭ রান নিয়ে আজ চতুর্থ দিনের ব্যাটিংয়ে নামে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু স্কোরবোর্ডে কোনো রান যোগ করার আগেই অলআউট হয়ে যায় ওজিরা। সেক্ষেত্রে তৃতীয় দিনে রেখে যাওয়া ৭২ রানের লিডই সম্বল হয় স্মিথ বাহিনীর।

আজ সাতসকালেই নাথান লায়নকে ফিরিয়ে ওজিদের গুটিয়ে দেন মোস্তাফিজুর রহমান। এনিয়ে চতুর্থ শিকার ঝুলিতে পুরলেন ফিজ। তার আগে ওয়ার্নার দাপটে তৃতীয় দিনের সিংহভাগ কাটলেও শেষ বেলায় বল হাতে ঝলক দেখান টাইগার বোলাররা। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ ১২৩ রান করেন ডেভিড ওয়ার্নার। এছাড়া স্মিথ ৫৮ এবং হ্যান্ডসকম্বের ব্যাট থেকে আসে ৮২ রান।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ৩০৫ রান। টাইগারদের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৮ রান করেন মুশফিকুর রহিম। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৬ রান এসেছে সাব্বির রহমানের ব্যাট থেকে। এছাড়া নাসির হোসেনের ৪৫, সৌম্য সরকারের ৩৩ এবং মুমিনুল হকের ৩১ রান দলের সংগ্রহে অবদান রাখে।

ওজিদের হয়ে বল হাতে সফল নাথান লায়ন। তিনি একাই শিকার করেন ৭ উইকেট। ২টি উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন অ্যাস্টন অ্যাগার। বাকি উইকেটটি এসেছে রান আউট থেকে।

প্রসঙ্গত, ঢাকা টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে ২০ রানে পরাজিত করেছে বাংলাদেশ। ফলে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে মুশফিক বাহিনী। চট্টগ্রাম টেস্টটি ওজিদের জন্য সিরিজ বাঁচানোর লড়াই। এই ম্যাচ ড্র হলেও বাংলাদেশের ঘরে যাবে সিরিজ জয়ের ট্রফি। আর ওজিরা জিতলে সমতায় শেষ হবে সিরিজ।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *