রাত ৩:১৮ | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

কালিয়াকৈরে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ৪

কালিয়াকৈর(গাজীপুর)প্রতিনিধি ॥
গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার হরিণহাটি এলাকায় শুক্রবার রাতে স্থানীয় রাজীবের  নেতৃত্বে ৭/৮ জন যুবক এক রং মিস্ত্রীকে আটক করে মুক্তিপন দাবী করে। পরে আটককৃতের স্ত্রীকে ডেকে এনে গণধর্ষণ করে। রাতে ঘটনার সাথে জড়িত ৪ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করে। এঘটনায় কালিয়াকৈর থানায় শনিবার দুপুরে রং মিস্ত্রী বাদী হয়ে ৯ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ মোশারফ হোসেন তুহিন মামলা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার হরিণহাটি এলাকার মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে ডালিম হোসেন(২৫), তার ভাই পৌর যুবলীগ নেতা রাজীব হোসেন(২২), চান্দরা পল্লীবিদ্যুৎ দীঘিরপাড় এলাকার মুক্তি দেওয়ানের ছেলে রবিন দেওয়ান(২৩) এবং  একই এলাকার আঃ জলিলের ছেলে  রিপন হোসেন(২৪)। রং মিস্ত্রী জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রবিন তার বাড়ীতে রং করার কথা বলে তাকে মোবাইলে ডেকে নিয়ে যায়। কথা মতো ওই বাড়ীতে গেলে রবিন ও যুবলীগ নেতা রাজীব নিরালায় কথা বলার জন্য ওই বাড়ীর দুই তলার ছাদে নিয়ে যায়। ছাদে যাওয়ার সাথে সাথে তাকে এলোপাথারী মারধর করতে থাকে এবং এক লাখ টাকা মুক্তিপন দাবী করে। টাকা দিতে অপারগতা শিকার করলে কৌশলে রং মিস্ত্রীর স্ত্রীকে ডেকে নেয় ওই বাড়ীর ছাদে। রং মিস্ত্রীর স্ত্রী ঘটনাস্থলে যাওয়ার সাথে সাথে তাকেও এলোপাথারী মারধর শুরু করে তারা। টাকা না দিলে তার স্ত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষনের প্রস্তাব দেয় তারা। এক পর্যায়ে স্বামী-স্ত্রীর দুইজনকে চোখ বেঁধে দুইজনকে আলাদা স্থানে রাখে। রং মিস্ত্রীর স্ত্রীকে পালাক্রমে ৪/৫ জনে ধর্ষণ করে। রাত সাড়ে ৯টার দিকে তাদের ছেড়ে দিলে কালিয়াকৈর থানায় এসে বিষয়টি পুলিশকে জানালে পুলিশ রাতেই ৪ জনকে গ্রেফতার করে। কালিয়াকৈর থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ জানান, মুক্তিপনের দাবী এবং ধর্ষণের অভিযোগে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পোশাক শ্রমিক ওই নারীকে পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। হাসপাতালের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর বুঝা যাবে ধষর্ণের ঘটনা ঘটেছে কিনা।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *