সন্ধ্যা ৭:৩২ | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

কলেজে ভর্তি বঞ্চিত ৪ লাখ শিক্ষার্থী!

স্টাফ রিপোর্টার :  একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির বাইরে রয়ে গেছে প্রায় ৪ লাখ শিক্ষার্থী। শনিবার থেকে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ক্লাস শুরু হলেও এসব শিক্ষার্থী কলেজে ভর্তি হতে পারবে কিনা তা এখনও অনিশ্চিত।

তবে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বঞ্চিতদের ভর্তির সুযোগ দেয়া হবে। আগামী ১৫ জুলাই থেকে নতুনভাবে আবেদন গ্রহণ করে তাদের ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে।

ঢাকা শিক্ষাবোর্ড সূত্র জানায়, এবার প্রায় ১৩ লাখ ২০ হাজার শিক্ষার্থীকে ভর্তির জন্য তিন ধাপে কলেজ নির্ধারণ করে দিলেও পুনরায় এসএমএস দিয়ে নিশ্চয়ন (কনফার্মেশন) করেছে ১২ লাখ ৩৬ হাজার ভর্তিচ্ছু ছাত্র-ছাত্রী।

এর মধ্যে ৮৪ হাজার শিক্ষার্থী কলেজ নিশ্চিত (নিশ্চয়ন) করে এসএমএস পাঠায়নি। আবার নিশ্চয়ন করেও ভর্তি হয়নি প্রায় ৩ লাখ শিক্ষার্থী। ফলে এসব শিক্ষার্থী ভর্তির বাইরে রয়ে গেছে।

এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাহাবুবুর রহমান  জানান, আগামী ২, ৩ ও ৪ জুলাই পর্যন্ত উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা কলেজে ভর্তি হতে পারবে। তবে যারা ভর্তি হয়নি বা সুযোগ পায়নি তাদেরও নতুন করে ভর্তির সুযোগ দেয়া হবে।

৪ জুলাইয়ের পর ভর্তি থেকে বাদ পড়ার সঠিক সংখ্যা জানা যাবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যারা ভর্তি বঞ্চিত রয়েছে বা নিশ্চয়ন বা নিশ্চিত করেও এখনও ভর্তি হয়নি তাদের পুনরায় ১০টি কলেজ নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন করে আবেদন করার সুযোগ দেয়া হবে।

‘আগামী ১৫ জুলাই থেকে এসব আবেদন গ্রহণ করা হবে। পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ করা হবে। ’

অধ্যাপক মাহাবুবুর রহমান জানান, এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে শনিবার রাতে সভা ডাকা হয়েছে। সব সিদ্ধান্ত ঢাকাবোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

এদিকে একাধিক অভিভাবক জাগো নিউজের এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, অনলাইনে ভর্তির জটিলতার কারণেই প্রায় ৪ লাখ শিক্ষার্থী ভর্তির বাইরে রয়ে গেছে। ভালো ফল করেও অনেককে বিপাকে পড়তে হয়েছে, নানা ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে।

অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া আরও সহজ ও উন্নত করার দাবি জানিয়েছেন তারা।

অভিভাবকরা বলেন, অনলাইনে ভর্তির প্রক্রিয়া আরও সহজ করা হোক নইলে ভর্তির বিষয়ে আগের সিদ্ধান্ত বহাল রাখা হোক।

উল্লেখ্য, গত ৯ মে থেকে অনলাইন ও এসএমএসে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন গ্রহণ করা হয়। প্রায় ২৫ দিন পর ৫ জুন প্রথম পর্যায়ের ফল প্রকাশ করা হয়।

পরবর্তীতে সময় বাড়িয়ে তিন দফায় আবেদন নেয়া হয়। আর ভর্তি শুরু হয় ২০ জুন থেকে, যা শেষ হয় ২৯ জুন।

পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের বিষয়টি বিবেচনা করে ৪ জুলাই পর্যন্ত ভর্তির সময় বাড়ানোর নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ।

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *