রাত ৩:২৩ | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ব্রেকিং নিউজ

আক্রান্ত মুসলিম রোজাদারদের পাশে গোলাপ হাতে লন্ডনবাসী

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক :  লন্ডনের মসজিদে  সন্ত্রাসী হামলার বিরুদ্ধে রোজাদার মুসলমানদের প্রতি সংহতি জানাতে ফুল হাতে এগিয়ে এসেছে স্থানীয় অমুসলিম জনসাধারণ। গোলাপী, হলুদ, সাদা এবং লাল গোলাপের সমাহারে প্রতীকীভাবে বহু সংস্কৃতির শান্তিপূর্ণ অবস্থানকে তুলে ধরেছে তারা।

রোববার রাতে লন্ডনে পবিত্র রমজানে মসজিদ থেকে ইফতার শেষে তারাবি নামাজ ফেরত মুসল্লিদের ওপর বেপরোয়া গাড়ি তুলে দেয়ার ঘটনায় একজন নিহত ও অন্তত আটজন আহত হন। উত্তর লন্ডনের ফিনসবারি পার্ক এলাকার একটি মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই গাড়ির ৪৮ বছর বয়সী চালককে আটক করা হয়।

এ ঘটনার প্রায় ২৪ ঘন্টার কাছাকাছি সময়ে মুসলমানদের উপর এ হামলার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ স্বরূপ তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে ভিন্ন ধর্মানুসারী অনেক মানুষ। সাংবাদিক লিপিকা পেলহ্যাম ফিনসবারি পার্ক মসজিদটির কাছাকাছি বসবাস করেন, স্থানীয় সিনাগগের একজন সদস্য তিনি। নিজ শিশুর স্কুলে হিজাব পরা শিশুদের পড়তেও তিনি দেখতে অভ্যস্ত। কয়েকশত মানুষের মধ্যে তিনিও ফুল হাতে মসজিদের সামনে দাঁড়িয়েছিলেন মুসলমানদের প্রতি সংহতি জানাতে।

ইহুদী, খ্রিষ্টান ধর্মের ও বিভিন্ন জাতির নানা সম্প্রদায়ের মানুষ সোমবার সন্ধ্যায় মসজিদের সামনে দাঁড়িয়ে মুসলমান রোজাদারদের বরণ করে নেন। রোজাদার মুসল্লীরা তখন মসজিদে নামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে প্রবেশ করছিলেন। আর ফুল হাতে সংহতি জানানো মানুষরা দাঁড়িয়েছিল মসজিদের সামনে লাইন ধরে। অনেকেই তাদের কন্যাকে মুসলমানদের পোষাক হিজাব পরিধান করিয়ে নিয়ে এসেছিলেন এসময়। ভালবাসার জয় হোক, সন্ত্রাসবাদের পরাজয় হোক- প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করে শতাধিক মানুষ।

তাদের মধ্যে সোমালিয়ান নারী মাহুবু বারে সন্তানদের নিয়ে মসজিদের সামনে দাঁড়ান গোলাপ হাতে। তাঁর এক বন্ধু পরিবারের সন্তান সে দিন মসজিদের সামনে আহত হয়েছিলেন। তিনি জানাচ্ছেন, “সন্ত্রাসীর কোন সমাজ নাই। আমরাই এক সম্প্রদায়।”

ইহুদী ও খ্রিষ্টান ধর্মের যাজকরা এদিন মসজিদের ইমামের সাথে কথা বলেন, একসাথে ছবি তুলেন। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে তারা এক সম্প্রদায় হিসেবে ভূমিকা রাখার ব্যাপারে ঐক্যমত্য হন। সূত্র: বিবিসি

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *